Thursday, September 26, 2019

ভারতের এন আর সি নিয়েও মাথাব্যথা পাকিস্তানের। এন আর সি নিয়ে উস্কানিমূলক টুইট ইমরানের।



ফের ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে নাক গলালেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আজ অসমে প্রকাশিত হয় নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা। সেখানে নাম নেই ১৯ লক্ষের বেশি মানুষের। তবে, তাঁদের এখনই ‘বিদেশি’ ঘোষণা করা হচ্ছে না। নাগরিকত্ব প্রমাণের জন্য সরকারের তরফে সব রকমের সহযোগিতা করা হবে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।



এনআরসি নিয়ে আজ উস্কানিমূলক টুইট করেন ইমরান খান। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের অভিযোগ, ভারত এবং আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে খবর আসছে মোদী সরকার কীভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে জাতিগতভাবে নিমূল করতে চাইছে। ফের আন্তজার্তিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করেন ইমরান। গোটা বিশ্বের কাছে অশনি সংকেতের ঘণ্টা বাজতে শুরু করেছে। মুসলিমদের লক্ষ্য করেই কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার।



 উল্লেখ্য, কাশ্মীর নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তান দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করলেও কোনও ফল হয়নি। ইসলামাবাদের অনুরোধেই নজিরবিহীনভাবে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয় রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে। কিন্তু চিন ছাড়া সে ভাবে কাউকে পাশে পায়নি পাকিস্তান। রাশিয়া, ব্রিটেন, আমেরিকা এবং ফ্রান্স স্পষ্টতই জানিয়েছে, কাশ্মীর সমস্যা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।



এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে রাজি নয় তারা। কূটনৈতিকভাবে মুখ থুবড়ে পড়ে পাকিস্তান। এরপর যেনতেন প্রকারে কাশ্মীরে হিংসার বাতাবরণ তৈরির চেষ্টা করে যাচ্ছে ইমরানের প্রশাসন। আজকের এই টুইট আরও একবার তা প্রমাণ করল। 

No comments:

Post a Comment