Tuesday, September 24, 2019

বুদ্ধিজীবিরা বলেন সন্ত্রাস বাদের কোন ধর্ম হয় না। কিন্তু ট্রাম্প বললেন আমরা ইসলামিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লাড়াই করব।




HOWDI MODI অনুষ্ঠানের উপর বিশ্বের নজর ছিল দৃঢ়। আর সেই অনুষ্ঠান থেকেই ইসলামিক আতঙ্কবাদের উপর কড়া ভাষায় আক্রমন করেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। সাধারণত নেতা মন্ত্রীরা ভোট ব্যাঙ্কের জন্য ইসলামিক আতঙ্কবাদ শব্দের ব্যাবহার করে না। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। ডোনাল্ড ট্রাম্প HOWDI MODI অনুষ্ঠান থেকে ইসলামিক আতঙ্কবাদ ও পাকিস্তানকে বড়ো হুমকি দেন। ট্রাম্প সরাসরি ইসলামিক আতঙ্কবাদ শব্দের উল্লেখ করেন। এত বড়ো মঞ্চ থেকে ইসলামিক আতঙ্কবাদ শব্দের উল্লেখ করতে ট্রাম্প একবারের জন্যও পিছু হাঁটেননি।



 উনি সোজা ভাষায় ইসলামিক আতঙ্কবাদের প্রসঙ্গ তুলে সুরক্ষার কথা বলেন। ট্রাম্প বলেছেন যে আমরা নিরীহ মানুষকে উগ্র ইসলামীক আতঙ্কবাদ থেকে রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ট্রাম্প যখন এটি বলেছিলেন, তখন প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ স্টেডিয়ামে উপস্থিত সবাই দাঁড়িয়ে করতালি দেন। সাধারণত বুদ্ধিজীবীরা দাবি করে যে আতঙ্কবাদের কোনো ধর্ম হয় না। তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প ভাষণের মাধ্যমে বুদ্ধিজীবীদের দাবিকে নাকচ করে দিয়েছেন।



ট্রাম্প একেবারে স্পষ্ট শব্দে ইসলামিক আতঙ্কবাদের সাথে লড়াই করার কথা বলেছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন আমি ভারতের সাথে মিলে ইসলামিক আতঙ্কবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করবো। তিনি বলেছিলেন যে উভয় দেশই একসঙ্গে লড়াই করবে। ট্রাম্প তার বক্তব্যে সীমান্ত সুরক্ষার কথাও উল্লেখ করেছিলেন।ট্রাম্প বলেছিলেন যে আমাদের সীমান্ত রক্ষা করা আমাদের দুজনের পক্ষে অত্যন্ত জরুরি। এ জন্য আমরা দুজনেই একসাথে পদক্ষেপ নেব। ট্রাম্পের এই বক্তব্যকে পাকিস্তানের অনুপ্রবেশের চেষ্টার প্রতিক্রিয়া হিসাবে দেখা হচ্ছে।


 ট্রাম্প বলেন, “দুই দেশ সুরক্ষার ক্ষেত্রে একসঙ্গে কাজ করছে।” আমরা দুজনই উগ্র ইসলামী সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করবো। ভারতের নেতারাও আতঙ্কবাদের বিরুদ্ধে কথা বলেন। কিন্তু স্পষ্ট ইসলামিক আতঙ্কবাদ শব্দের ব্যাবহার করতে পিছু হাটে। কারণ ধর্মনিরপেক্ষতার নামে ভারতে ভণ্ডামি একটু অতি মাত্রায় হয়। তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প বড়ো মঞ্চ থেকে বিশ্বকে একটা বড়ো বার্তা দিয়েছেন। আগামী দিনে এর উপর চর্চা যে আরো তীব্র হবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।      

No comments:

Post a Comment