Friday, November 1, 2019

বাগদাদির মৃত্যুতে আনন্দবাজারে এত শোকের ছায়া কেন?



বাগদাদির মতন একজন কুখ্যাত  টেরোরিস্টের মৃত্যুতে যখন সমস্থ পৃথিবীর মানুষ সস্থির নিঃশ্বাস ফেলছে, সেখানে আমাদের বাংলার তথাকথিত এক নম্বর দৈনিক প্রত্রিকায় পাতায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। হ্যা এখানে আনন্দ বাজার প্রত্রিকার কথাই বলা হচ্ছে। আহা বাগদাদির মৃত্যুতে শোকে গদ গদ হয়ে কান্না জুড়ে দিয়েছে এই পেপার। তবে আনন্দ বাজারের এই টেরোরিস্ট সিমপ্যাথি শুধু আজকের নয় এর আগে যখন কাশ্মীরের টেরোরিস্ট কমরেড বুরহান বানি মরে যায় তখনো ঠিক একই ভাবে নাকে কান্না ধরেছিল আনন্দ বাজার। তার একবছর পর তারা আবার বুরহান বানির জন্মদিন পালন করে।



 যখনই কোন টেরোরিস্ট মারা যায় তখন এই আনন্দ বাজার মানুষের মনে এই টেরোরিস্ট গুল সম্পর্কে সিমপ্যাথি তৈরি করার চেষ্টা করে। যেমন বাগদাদি কত মেধাবি ছাত্র ছিল সে খেলাধূলাতে কত ভাল ছিল, বুরহান বানির বাবা খুবই সরল সাদাসিধা স্কুলের মাস্টার ছিল ইত্যাদি। এই ভাবে সফট ভাবে তারা পরক্ষ ভাবে কি জঙ্গিবাদ কে সর্মথন করছে না। এই ভাবে তার টেরোরিস্ট গুলির  জীবনিকে গৌরবান্বিত করছে।



তবে আনন্দ বাজার এই দৌড়ে এক নয় এর সাথে আছে এইসময়, এই বেলা, ও একচেটিয়া বাম মার্কা কাগজ গুল। ঠিক যেই ভাবে বিদেশি মিডিয়া  বিবিসি একসময় বাঙালি হত্যা করি তিতুমীরকে, ১০ জন সেরা বাঙালির মধ্যে সামিল করেছিল ঠিক সেই ভাবে এই সমস্থ বাংলার পেপার গুল একচেটিয়া ভাবে জঙ্গিবাদকে প্রত্যক্ষ ও পরক্ষ দুই ভাবে সমর্থন করছে কিন্তু বর্তমান রাজ্য সরকার সব কিছু দেখেও পুরো নিঃচুপ।  

No comments:

Post a Comment